বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির ও ঢাকা মহানগরীর আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী বলেছেন, ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মা ও নবীন কুমার জিন্দাল মহানবী হযরত মোহাম্মদ(স.) ও হযরত আয়েশাকে(রা:) নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ও আপত্তিকর মন্তব্য করে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছে। অবিলম্বে অপরাধীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান এবং ভারত সরকারকে মুসলিম উম্মাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, ভারতের ধর্মান্ধ ও উগ্রবাদীরা মূলত ইসলাম বিরোধীতা ও মুসলিম বিদ্বেষকে রাজনৈতিক হাতিয়ার বানিয়েছে। ভারতের রাজনীতিতে উগ্রবাদীদের উত্থান পুরো উপমহাদেশকেই অস্থিতিশীল করে তুলেছে। রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় বাবরি মসজিদ দখলের পর উগ্রবাদীরা নতুন ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। ধর্মান্ধরা পবিত্র কুরআন পরিবর্তনের চক্রান্ত, জ্ঞানবাপী মসজিদ, আগ্রার তাজমহল ও দিল্লির কুতুব মিনার দখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত।

মাওলানা হামিদী বলেন, মোদি সরকার ভারতকে মুসলিম শূন্য করার জন্য সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ভারতের নিত্যদিনের ঘটনায় পরিণত করেছে। উগ্রবাদী গোষ্ঠী ভারতের মাটি থেকে ইসলাম ও ইসলামী মূল্যবোধ মুছে দিয়ে ভারতকে একক হিন্দু সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখছে। ব্রাহ্মণ্যবাদের এ ষড়যন্ত্র সফল হবে না। মাওলানা হামিদী বিশ্ব নবী (স.) এর প্রতি শ্রদ্ধা-সম্মান প্রদর্শন করে বাংলাদেশ সংসদ থেকে নিন্দা প্রস্তাব পাস করানোর জন্য সরকারের প্রতিও আহ্বান জানান।

Rate this post

By Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.