নাটোরে টিকটক করায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার, স্কুল ভাংচুর

24

টিকটকের ভিডিও তৈরীর অভিযোগে নাটোর সদর উপজেলার চন্দ্রকোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির তিন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের প্রতিবাদে বিদ্যালয় ভাঙচুর করেছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ওই এলাকায় থমথমে পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, সম্প্রতি নাটোর সদর উপজেলার চন্দ্রকোলা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেণির ২ ছাত্র ও ১ ছাত্রী টিকটকে একটি ভিডিও তৈরী করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাড়ে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার বিকেলে বিদ্যালয় থেকে তাদের বহিষ্কার করা হয়। রোবববার সকালে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বেলা ১১টার দিকে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের স্টাফ রুম ভাঙচুর করে।

নাটোর সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। বহিষ্কার হওয়া শিক্ষার্থীদের পরিবারের অভিযোগ, টিকটকের বিষয়ে তাদের অবিহিত না করেই বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তিন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করে।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমান দাবি করেছেন, বিষয়টি অভিভাবকদের অবহিত করা হয়েছে। আর কমিটির সিদ্ধান্তে তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অফরোজা খাতুন জানান, শিক্ষার্থীদের নিয়ম অনুযায়ী বহিষ্কার করা হয়নি। তাই তাদের আবার ক্লাস করার অনুমতি দেয়া হয়েছে। নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, এ ঘটনায় জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে তদন্ত করে দ্রুত প্রতিবেদন প্রদানের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Previous articleমেয়েকে উত্ত্যক্ত করায় যুবককে প্রকাশ্যে লাঠি পেঠা করেছে মা
Next articleরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ক্যাম্পাসের গাছে আম পাড়তে উঠে পড়ে গিয়ে নাক ফাটলো রাবি ছাত্রের…!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here