একই মসজিদে ৩৫ বছর ইমামতি, বিদায়ে ১৫ লাখ টাকা সম্মাননা

২৭ বছর বয়সে চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী কলোনি বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদে ইমামতি ও এলাকার মক্তবের দায়িত্ব নেন হাফেজ মাওলানা গোলাম কিবরিয়া। এরপর প্রায় ৩৫ বছর খেদমত করে গেছেন এই মসজিদে।

কিন্তু সবকিছুরই একটা বিদায় আছে। তাই ৬২ বছর বয়সে এসে নিজ দায়িত্ব থেকে অবসর নিলেন তিনি। আর তার সেই বিদায়বেলাকেই স্মরণীয় করে রাখলো মসজিদ পরিচালনা কমিটি ও খুলশি কলোনির সাধারণ মানুষ। বিদায়বেলায় হাফেজ মাওলানা গোলাম কিবরিয়াকে নগদ ১৫ লাখ টাকা ও নানা উপহারসামগ্রী দিয়ে এই সম্মাননা দেন তারা।

মাওলানা গোলাম কিবরিয়া নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চর জব্বার থানার চরবাটা গ্রামের প্রয়াত হাফেজ সোলায়মানের ছেলে। পারিবারিক জীবনে তিন ছেলে ও তিন মেয়ের বাবা তিনি। তাদের মাদ্রাসায় শিক্ষা দিয়েছেন। পরে তারা উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেছেন। তার তিন ছেলেই কোরআনের হাফেজ। মেয়েদের বিয়ে দিয়েছেন। এক মেয়ে মাস্টার্স ও অন্য দুই মেয়ে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছেন।

দেশের বেশিরভাগ মসজিদের ইমামদের বেতন-ভাতা খুব বেশি নয়। বিদায় বেলায় তেমন কোনো অর্থও দেওয়া হয় না। এ ক্ষেত্রে মাওলানা গোলাম কিবরিয়া ভাগ্যবান। যেই মসজিদে কর্মজীবন পার করেছেন, সেই মসজিদ কমিটি ও এলাকার মানুষ তাকে অর্থ ও উপহার সামগ্রী দিয়ে সম্মানিত করলেন।

খুলশি কলোনি বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও সাব্বির হান্নানের পরিচালনায় বিদায় সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি ছিলেন নগরীর ৮ নম্বর শোলকবহর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোরশেদ আলম। উপস্থিত ছিলেন খুলশি কলোনি বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদের খতিব মাওলানা ড. আতাউর রহমান নদভী, খুলশী থানার অফিসার্স ইনচার্জ সন্তোষ কুমার চাকমা, মাওলানা হাফিজ আহমেদ, খুলশী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শহীদুর রহমান, খুলশী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. নুরুল আবছার প্রমুখ।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x