সাব-ইন্সপেক্টর (SI) হতে চাইলে স্নাতক শেষ করার পর SI নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।
এই সাব-ইন্সপেক্টর (SI) নিয়োগ পরীক্ষায় সাধারণত ইংরেজি, বাংলা, সাধারণ গণিত এবং মনস্তাত্ত্বিক বিষয়ে সব মিলিয়েপরীক্ষা নেওয়া হয়ে থাকে।

প্রশ্নের মান বন্টনঃ

(বাংলা-৫০ নম্বর)
রচনা-১৫
ভাব-সম্প্রসারণ-১৫
এক কথায় প্রকাশ-
অর্থসহ বাক্য রচনা-
বাংলা অনুবাদ-১৫

এগুলো তে প্রস্তুতির ক্ষেত্রে নবম-দশম শ্রেণীর বই অথবা বাজারে অনেক ভালো গাইড বই রয়েছে সেগুলো থেকে পড়ে প্রস্তুতি নিতে পারেন।

(ইংরেজি-৫০ নম্বর)
Composition(Eassy)-১৫
Preposition-
Idioms & phrase-
Letter/Application-১০
Translation-১৫

লক্ষ্য করুন বাংলা ও ইংরেজি মিলিয়ে অনুবাদের ক্ষেত্রে ৩০ নম্বর।সাব- ইন্সপেক্টর (SI) হতে চাইলে অনুবাদের জন্য আপনার ভালোভাবে প্রস্তুতি নেওয়া উচিত।

(সাধারণ জ্ঞান-৫০ নম্বর)

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্নধরণের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা,পুলিশ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন,টিকা তথ্য প্রযুক্তি এবং দেশ, সংস্থা মুক্তিযুদ্ধ ইত্যাদি সম্পর্কিত বিষয় থেকে প্রশ্ন করা হয়ে থাকে সাব-ইন্সপেক্টর (SI) নিয়োগের ক্ষেত্রে।

(সাধারণ গণিত-৫০ নম্বর)

গসাগু,লসাগু, সরলীকরণ,ভগ্নাংশ, ঐকিক নিয়ম,অনুপাত,সমানুপাত,গড়,শতকরা,পরিমাপ ক্ষেত্র, লাভ,ক্ষতি ইত্যাদি থেকে সাধারণ গণিত বিষয়ক প্রশ্ন করা হয়ে থাকে সাব-ইন্সপেক্টর (SI) নিয়োগ পরীক্ষায়।

(মনস্তাত্ত্বিক দক্ষতা-২৫/৫০ নম্বর)

মনস্তাত্ত্বিক দক্ষতার ক্ষেত্রে সাব-ইন্সপেক্টর নিয়োগ পরীক্ষায় অসম্ভাব্যতা যাচাই,ভাষা,সাহিত্য, বিভিন্ন কিছুর সাদৃশ্য বিচার,সাংকেতিক বিন্যাস,সম্পর্ক এবং বিশেষত্ব নির্ণয়,শব্দ গঠন,গাণিতিক যুক্তি, জ্যামিতির অংশ, সাধারণ জ্ঞানের অংশ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ইত্যাদি বিষয়গুলো থেকে প্রশ্ন করা হয়।

এ ক্ষেত্রে ভালো প্রস্তুতির জন্য আই-কিউ সামিট অথবা হালদা মানসিক দক্ষতা (আইকিউ) বই পড়তে পারেন। SI নিয়োগের ক্ষেত্রে সাধারণত অনেক যাচাই-বাছাই করে নির্বাচন করা হয় প্রশ্ন প্রণয়ণের ক্ষেত্রে যে কোন সময় মানবন্টনের বিষয়গুলো অন্যরকম হতে পারে।তাই, SI আপনাকে সবকিছু বিবেচনা করে ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে।

সাব-ইন্সপেক্টরের বেতনঃ

পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর (SI) কে মৌলিক প্রশিক্ষণ চলার সময়ই ১০০০ টাকা ভাতাসহ পোশাক,বাসস্থান ফ্রি তে দেওয়া হয়।
সাধারণত স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী পুলিশের একজন সাব-ইন্সপেক্টর (SI) দশম গ্রেডের বেসিক ১৬০০০ থেকে ৩৮৬০০ হারে বেতন পান।
এছাড়াও বিনামূল্যে ঈদ,পূজার মতো বিভিন্ন উৎসব ভাতা,পোশাক,রেশন,ঝুঁকি ভাতা,যাতায়াত চিকিৎসা মামলা তদন্ত ভাতা ইত্যাদি মিলিয়ে প্রায় ৫০ হাজারের মতো বেতন পেয়ে থাকেন।
বেতন যতদিন দিন যায় তত বৃদ্ধি পেতে থাকে।একজন সাব-ইন্সপেক্টরের বিদেশে মিশনের যাওয়ার সুযোগ থাকে।
জাতিসংঘের (এফপিইউ)ফরমড পুলিশ ইউনিটের মিশনে গেলে বছরে প্রায় ১৫ থেকে ২০ লক্ষ টাকার মতো ভাতা পাওয়া যায়।
একজন সাব-ইন্সপেক্টর পদোন্নতি পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনারও হতে পারেন।
পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর (SI) হওয়ার জন্য অবশ্য ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে।কারণ,অনেকগুলো প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাছাই করে একজন সাব-ইন্সপেক্টর (SI) নিয়োগ দেওয়া হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x