ল্যাটিন নাম: Hydrargyrum
প্রতীক চিহ্ন: Hg
পারমাণবিক সংখ্যা: ৮০
পারমাণবিক ভর: ২০০.৬
গলনাঙ্ক: -৩৯ ডিগ্রী সে.
স্ফুটনাঙ্ক: ৩৫৬.৯ ডিগ্রী সে.
পর্যায় সারণিতে অবস্থান: ৬ষ্ঠ পর্যায়ে ১২নং গ্রুপে
প্রকৃতি: সাধারণ তাপমাত্রায় একমাত্র তরল সাদা ধাতু।
প্রকৃতিতে অবস্থান:
পারদ খুব দুষ্প্রাপ্য ধাতু। একটি একমাত্র তরল ধাতু। কাজেই এটি বেশ দামী। প্রকৃতিতে খুব অল্প পরিমাণই মুক্ত অবস্থায় বিরাজ করে। এর প্রধান উৎস হল এর সালফাইড আকরিক, সিনাবার(HgS) আকরিক। এই আকরিক স্পেন(পৃথিবীর ৮০%), ইতালি, অস্ট্রিয়া, ক্যালিফোর্নিয়া প্রভৃতি স্থানে পাওয়া যায়।
ব্যবহার:
১। বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি, যথা- থার্মোমিটার, ব্যারোমিটার, ম্যানোমিটার প্রভৃতি যন্ত্রে পারদ ব্যবহৃত হয়।
২। ধাতু নিষ্কাশন ও ইলেকট্রোড রূপে ব্যবহৃত হয়।
৩। পারদ যৌগ, যথা- ভার্সিলিয়ন(HgS), বিস্ফোরক, পারদ ফালমিনেট প্রভৃতি তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।
৪। অতি বেগুনী রশ্মি উৎপাদনের জন্য পারদ বাষ্প-ল্যাম্পে ও ফ্লুরিসেন্ট বাতিতে পারদ ব্যবহৃত হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x