ক্রিয়া সংঘটনের সময়কে কাল বলে। অর্থাৎ, ক্রিয়া, বর্তমান, অতীত বা ভবিষ্যতে সম্পন্ন হওয়ার সময় নির্দেশই ক্রিয়ার কাল।

ক্রিয়ার যে রূপের দ্বারা ক্রিয়া ঘটার বিভিন্ন সময় বোঝায়, তাকে ক্রিয়ার কাল বলে।

কালের প্রকারভেদ / শ্রেণীবিভাগ

ক্রিয়ার কাল ৩ প্রকার। যথাঃ

  • বর্তমান
  • অতীত
  • ভবিষ্যৎ

বর্তমান কাল

ক্রিয়ার যে রূপের দ্বারা ক্রিয়া এখন / বর্তমানে ঘটছে বোঝায়, সে সময়কে বর্তমান কাল বলে। যেমন – ইফাদ গতকাল হাঁটে যায়নি।

বর্তমানকালের প্রকারভেদ / শ্রেণীবিভাগ

বর্তমান কাল ৩ প্রকার। এগুলো হলো –

  • সাধারণ বর্তমান / নিত্যবৃত্ত বর্তমান
  • ঘটমান বর্তমান
  • পুরাঘটিত বর্তমান

সাধারণ বর্তমানঃ যে ক্রিয়া বর্তমানে সাধারণভাবে ঘটে বা হয়, তাকে সাধারণ বর্তমান কাল বলে। যেমন – আমি স্কুলে যাই।

নিত্যবৃত্ত বর্তমানঃ স্বাভাবিক বা অভ্যস্ততা বোঝালে সাধারণ বর্তমান কালের ক্রিয়াকে নিত্যবৃত্ত বর্তমান কাল বলে। যেমন – সন্ধ্যায় সূর্য অস্ত যায়।

ঘটমান বর্তমানঃ ক্রিয়ার যে কাজ বর্তমানে ঘটছে বা চলছে, এখনো শেষ হয়ে যায় নি, তাকে ঘটমান বর্তমান বলে। যেমন – ইফাদ বই পড়ছে

পুরাঘটিত বর্তমানঃ যে ক্রিয়া কিছু আগে শেষ হয়েছে কিন্তু তার ফল এখনও বর্তমান রয়েছে, তাকে পুরাঘটিত বর্তমান বলে। যেমন – এবার আমি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছি।

অতীত কাল

ক্রিয়ার যে রূপের দ্বারা ক্রিয়া পূর্বে বা অতীতে কোন এক সময় সংঘটিত হয়েছে, সেই সময়কেই অতীতকাল বলে। যেমন – আমি কাজটি করলাম

অতীতকালের প্রকারভেদ / শ্রেণীবিভাগ

অতীত আবার ৪ প্রকার। যথাঃ

  • সাধারণ অতীত
  • নিত্যবৃত্ত অতীত
  • ঘটমান অতীত
  • পুরাঘটিত অতীত

সাধারণ অতীতঃ যে ক্রিয়া অতীতে সাধারণতভাবে সংঘটিত হয়েছে, তাকে সাধারণ অতীত বলে। যেমন – ইফাদ পাখিটিকে গুলি করল

নিত্যবৃত্ত অতীতঃ অতীত কালে যে ক্রিয়া সাধারণ অভ্যস্ততা অর্থে ব্যবহৃত হয়, তাকে নিত্যবৃত্ত অতীত বলে। যেমন – ছুটিতে প্রতিবছর ট্যুরে যেতাম

ঘটমান অতীতঃ যে ক্রিয়া অতীতে চলছিল, তখনও শেষ হয় নি বোঝায়, তাকে ঘটমান অতীত বলে। যেমন – মা আমাদের পড়াশোনা দেখছিলেন

পুরাঘটিত অতীতঃ যে ক্রিয়া অতীতের বহু আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে এবং যার পরে আরও কিছু ঘটনা ঘটে গেছে, তার কালকে পুরাঘটিত অতীত বলে। যেমন – কাজটি কি তুমি করেছিলে?

ভবিষ্যৎ কাল

ক্রিয়ার যে রূপের দ্বারা ক্রিয়া ভবিষ্যতে কোন এক সময় ঘটবে সেই সময়কে ভবিষ্যৎ কাল বলে। যেমন – আমি হব সকাল বেলার পাখি।

ভবিষ্যৎ কালের প্রকারভেদ / শ্রেণীবিভাগ

ভবিষ্যৎ কাল ৩ প্রকার। যথাঃ

  • সাধারণ ভবিষ্যৎ
  • ঘটমান ভবিষ্যৎ
  • পুরাঘটিত ভবিষ্যৎ

সাধারণ ভবিষ্যৎঃ যে ক্রিয়া পরে সংঘটিত হবে, তাকে সাধারণ ভবিষ্যৎ বলে। যেমন – আমরা খেলতে যাব

ঘটমান ভবিষ্যৎঃ যে ক্রিয়া ভবিষ্যতে চলতে থাকবে তার কালকে ঘটমান ভবিষ্যৎ বলে। যেমন – ইফাদ দৌড়াতে থাকবে

পুরাঘটিত ভবিষ্যৎঃ যে ক্রিয়া সম্ভবত ঘটে গিয়েছে, সাধারণ ভবিষ্যত কালবোধক শব্দ ব্যবহার করে বোঝাতে পুরাঘটিত ভবিষ্যৎ হয়। যেমন – তুমি হয়ত এ কাজটি করে থাকবে

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x