যে সুবিন্যস্ত পদসমষ্টি দ্বারা কোন বিষয়ে বক্তার মনোভাব সম্পূর্ণভাবে প্রকাশিত হয়, তাকে বাক্য বলে। কতগুলো পদ মিললেই বাক্য হয় না। বাক্য হতে হলে বাক্যের বিভিন্ন পদের মধ্যে সমন্বয় থাকা প্রয়োজন। মূলত বাক্য হলো আকাঙ্খা, আসত্তি ও যোগ্যতা সম্পন্ন পদসমষ্টি যা বক্তার মনোভাব সম্পূর্ণভাবে প্রকাশ করতে পারে। আর এটিই হচ্ছে বাক্য গঠন। বাক্য গঠনটি একটি বাক্যের মধ্যে শব্দ, বাক্যাংশ, এবং উপাদানের বিন্যাস।

শব্দ দিয়ে বাক্য গঠন

নিম্নে কয়েকটি শব্দ দিয়ে বাক্য গঠন করা হলো –

প্রদত্ত শব্দ বাক্য গঠন
দক্ষ ইফাদ একজন দক্ষ ইনঞ্জিনিয়ার।
শব্দ শব্দ দূষণের ফলে পরিবেশের অনেক ক্ষতি হয়।
কর্তব্য বাবা – মায়ের প্রতি আমাদের কর্তব্য পালন করা উচিত।
প্রচুর ইফাদ অনলাইনে কাজ করে প্রচুর ইনকাম করছে।
সম্পদ সুস্বাস্থ্য জীবনের অমূল্য সম্পদ।
স্বাস্থ্য স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল।
সুন্দরবন সুন্দরবনে পশু-পাখি এখন বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে।
ছাত্রছাত্রী লেখাপড়া করা ছাত্রছাত্রীদের প্রধান কর্তব্য।
নিষিদ্ধ যেখানে সেখানে গাড়ি পার্কিং করা নিষিদ্ধ।
স্বভাব তার স্বভাব খুবই বাজে।
স্থান পাহাড়ি এলাকায় অনেক নির্জন স্থান রয়েছে।
জ্ঞানী মূর্খ বন্ধুর চেয়ে জ্ঞানী শত্রু ভালো।
নির্বিঘ্ন যাত্রীরা নির্বিঘ্নে দেশ ছাড়ল।
কষ্ট কষ্ট করলে কেষ্ট মেলে।
আনন্দ পাখিরা আকাশে ওড়ে আনন্দ পায়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x