স্থানীয় বাজার (Local market) : যদি কোনো পণ্যের ক্রয়-বিক্রয় একটি বিশেষ এলাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে তাহলে তাকে স্থানীয় বাজার (Local market) বলা হয়। যেমন- শাকসবজি, মাছ, দুধ প্রভৃতি নিত্য প্রয়োজনীয়র বাজার।

জাতীয় বাজার (National market) : যদি কোনো পণ্যের ক্রয়-বিক্রয় স্থানীয় এলাকার গণ্ডী অতিক্রম করে সারা দেশব্যাপী বিস্তৃত হয় তাহলে তাকে ‘জাতীয় বাজার’ (National market) বলা হয়। দেশে তৈরি বস্ত্র সামগ্রী, ঔষধপত্র, খেলার সামগ্রী প্রভৃতির বাজার জাতীয় বাজারের পর্যায়ভুক্ত। এ সব পণ্যের ক্রয়-বিক্রয় মূলত দেশের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে।

আন্তর্জাতিক বাজার (International market) : যে সব পণ্যের ক্রয়-বিক্রয় দেশের সীমানা অতিক্রম করে, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ক্রয়-বিক্রয় হয়ে থাকে সে সব পণ্যের বাজারকে ‘আন্তর্জাতিক বাজার’ (International market) বলা হয়। যেমন— সোনা, রুপা, পাট, প্রভৃতি পণ্য-সামগ্রীর ক্রয়-বিক্রয় কেবল দেশের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে না; বরং এ সব দ্রব্য মূলত বিদেশের বাজারে ক্রয়-বিক্রয় হয়ে থাকে। এ সব পণ্যের বাজার আন্তর্জাতিক বাজারের শ্রেণিভুক্ত।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x