অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা বলতে পরিবেশের বহন ক্ষমতার কথা বিবেচনা করে পরিবেশের ক্ষতি না করে প্রাকৃতিক সম্পর্কের সুষ্ঠু ও বিজ্ঞানসম্মত ব্যবহারের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়ন সাধনকে বোঝায়।

অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার মূল উদ্দেশ্য হলো-

১) স্থিতিশীল উৎপাদন ব্যবস্থা বা উৎপাদন পদ্ধতি গড়ে তোলা।
২) স্থিতিশীল পদ্ধতিতে সম্পদের ভোগ বা ব্যবহার সম্পর্কে সচেতন করা।
৩) স্থিতিশীল পর্যটন গড়ে তোলা।
৪) স্থিতিশীল বাণিজ্যব্যবস্থা গড়ে তোলা।

৫) শহর ও গ্রামের বিকাশ।
৬) স্থিতিশীল বাণিজ্যব্যবস্থা গড়ে তোলা।
৭) দারিদ্র্য দূরীকরণ ও বেকারত্ব দূরীকরণ, দারিদ্রের অনুকূল উন্নয়ন ব্যবস্থা।
৮) মাথাপিছু আয় ও জাতীয় আয় বৃদ্ধি।
৯) উন্নত ও অনুন্নত দেশের উন্নয়ন তথা আয়ের ফারাক দূর করা।
১০) আয় বণ্টনে অসমতা দূর করা।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x