গ্রীজ (Grease)
ফ্যাটি এসিডের ক্যালসিয়াম, সোডিয়াম সাবান (যৌগ) ঘনকারী উপাদান হিসাবে লুব্রিকেন্টের সাথে মিশ্রিত হলেই, তা গ্রীজ হিসাবে বিবেচিত হয়। গ্রীজের মধ্যে অবস্থানকারী তেল লুব্রিকেন্টের কাজ করে এবং ঘনকারী উপাদান বা সাবান ঐ তেলকে নির্দিষ্ট স্থানে ধরে রাখার কাজ করে।

গ্রীজের প্রয়োগ
(ক) তরল লুব্রিকেন্ট প্রয়োগে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয় এমন স্থানে গ্রীজ প্রয়োগ করা হয়।
(খ) কম তাপমাত্রা (200°F-এর কম) সৃষ্টি হয় এমন স্থানে গ্রীজ প্রয়োগ করা হয়।
(গ) কম গতি এবং উচ্চলোড বহনক্ষম যন্ত্রাংশ, গীয়ার, বিয়ারিং ইত্যাদিতে গ্রীজ প্রয়োগ করা হয়।
(ঘ) ধুলাময় স্থানে ব্যবহৃত হয় এবং কম রক্ষণাবেক্ষণ প্রয়োজন এমন গীয়ার, বিয়ারিং, এক্সেল ইত্যাদিতে গ্রীজ প্রয়োগ করা হয়।

লুব্রিকেন্ট (Lubricant)
পারস্পরিক সম্পর্কযুক্ত চলমান যন্ত্রাংশের মধ্যে ঘর্ষণ এবং ক্ষয় কমানোর জন্য এদের মধ্যবর্তী অবস্থানে যে পদার্থ দেয়া হয়, তাকে লুব্রিকেন্ট বলে।

লুব্রিকেন্টের প্রকারভেদ
লুব্রিকেন্টকে নিচের মত করে শ্রেণিবিভক্ত করা যায়। যথা–

(ক) খনিজ তেল।
(খ) প্রাণীজ ও উদ্ভিদ তেল
(গ) সিনথেটিক তেল
(ঘ) অন্যান্য তরল
(ঙ) গ্রীজ
(চ) সলিড লুব্রিকেন্ট।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x