১৯৭১ সালে দেশকে পাকিস্তানদের হাত থেকে মুক্ত করার জন্য যে যুদ্ধ হয়েছিল তাই মুক্তিযুদ্ধ। দেশকে স্বাধীন করার জন্য মুক্তিযুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল।

মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশকে পেয়েছি। এর ফলে পৃথিবীর বুকে আমরা স্বাধীন জাতি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছি।

মুক্তিবাহিনী কিভাবে সংগঠিত হয়েছিল?

১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল মুজিবনগর সরকার গঠনের পর মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনার জন্য সামরিক বেসামরিক জনগণকে নিয়ে মুক্তিবাহিনী গড়ে তোলার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। সরকার বাংলাদেশকে ১১টি সেক্টরে বিভক্ত করে। এ ছাড়া বেশ কিছু সাব-সেক্টর এবং তিনটি ব্রিগেড ফোর্স গঠন করা হয়। এসব বাহিনীতে বাঙালি সেনা, কর্মকর্তা, সেনাসদস্য, পুলিশ, ইপিআর, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীর সদস্যরা যোগদান করেন। প্রতিটি সেক্টরে ছিল নিয়মিত সেনা, গেরিলা ও সাধারণ যোদ্ধা। তারা মুক্তিযোদ্ধা বা মুক্তিফৌজ নামে পরিচিত ছিল। এসব বাহিনীতে দেশের ছাত্র, যুবক, নারী, কৃষক, শ্রমিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশ নিয়েছিল।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x