কোনো তাড়িতচৌম্বক তরঙ্গের গতিপথের সাথে লম্ব একক ক্ষেত্রফলের মধ্যে দিয়ে একক সময়ে যে পরিমাণ শক্তি অতিক্রম করে তাকে পয়েন্টিং ভেক্টর বলে।

আলোর কোয়ান্টাম তত্ত্ব ব্যাখ্যা কর।
আলোর তথা যে কোনো বিকিরণ অসংখ্য কোয়ান্টার সমষ্টি। এই কোয়ান্টাগুলোকে বলা হয় ‘ফোটন’।

বিকিরণ সর্বদা গুচ্ছ গুচ্ছভাবে বা প্যাকেট আকারে নির্গত বা শোষিত হয়। সঞ্চালনের সময়ও বিকিরণ প্যাকেট আকারে অর্থাৎ বিচ্ছিন্নভাবে গমন করে। এই প্যাকেটগুলোই ফোটন। ফোটন কখনো কণার ন্যায় আচরণ করে, কখনো তরঙ্গের ন্যায় আচরণ করে। ফোটন কণা ভরহীন ও চার্জহীন।

প্রত্যেকটি ফোটনের শক্তি নির্দিষ্ট একটি ফোটনের শক্তি, E = hv
এখানে, h = প্ল্যাঙ্কের ধ্রুবক
V = ফোটনের কম্পাঙ্ক

এ মতবাদের সাহায্যে খুব সুন্দরভাবে আলোক-তড়িৎ নিঃসরণ, কম্পটন ক্রিয়া, রমন ক্রিয়া প্রভৃতির ব্যাখ্যা করা যায়। কিন্তু আলোকের ব্যতিচার, অপবর্তন প্রভৃতি ঘটনা ব্যাখ্যার ক্ষেত্রে আলোকের তরঙ্গ তত্ত্ব অপরিহার্য।

আলোর প্রকৃতি যেন দ্বিমুখী, কখনও এটি তরঙ্গ, আবার কখনো বা এটি কণা বা কোয়ান্টা।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x