HTTP অর্থ হলো Hyper Text Transfer Protocol। ইন্টারনেটে টিসিপি/আইপি প্রটোকলের মাধ্যমে যে প্রটোকল ওয়েব সার্ভার ও ওয়েব ক্লায়েন্ট-এর মধ্যে ডেটা আদান-প্রদান করে তাকে এইচটিটিপি (HTTP) বলে। ক্লায়েন্ট বিভিন্ন ব্রাউজারের মাধ্যমে ওয়েবপেইজের জন্য সার্ভারকে অনুরোধ পাঠাতে থাকে। সার্ভার ক্লায়েন্টের অনুরোধে সাড়া দিয়ে ওয়েবপেইজকে ক্লায়েন্টের কাছে পাঠিয়ে দেয়। ক্লায়েন্ট বিভিন্ন ব্রাউজারের মাধ্যমে তা দেখতে পায়। আর যার মাধ্যমে ডেটা আদান-প্রদান হয় তা হলো এইচটিটিপি (HTTP)। সুতরাং এইচটিটিপি (HTTP) এর কাজ হচ্ছে– সার্ভারের সাথে ব্রাউজারের সংযোগ তৈরি করা, ব্রাউজারের যেকোনো অনুরোধ সার্ভারে পৌছে দেওয়া, ব্রাউজারের অনুরোধে সার্ভারের সাড়া মোতাবেক ওয়েবপেইজকে ব্রাউজারে নিয়ে আসা, ব্রাউজার এবং সার্ভারের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা।

ইন্টারনেট দিয়ে যা যা করা যায়ঃ

ইন্টারনেট দিয়ে আমরা ওয়েবসাইট ব্রাউজিং করতে পারি, ই-মেইল পাঠাতে এবং গ্রহণ করতে পারি ও ভিডিও কনফারেন্সিং করতে পারি। আড্ডা দিতে পারি এবং গল্পগুজব করতে পারি, ট্রেন, বাস বা প্লেনের টিকিট কিনতে পারি এবং ইলেকট্রনিক ব্যবসা-বাণিজ্য, ই-ব্যাংকিং ও শপিং করতে পারি। ইলেকট্রনিক ভাবে যেকোনো ফাইল, ডকুমেন্ট ইত্যাদি পাঠাতে ও গ্রহণ করতে পারি। এছাড়া যেকোনো সময় অনলাইন লাইব্রেরির হাজার হাজার, লাখ লাখ বই, জার্নাল, ম্যাগাজিন ইত্যাদির সন্ধান করতে পারি এবং প্রয়োজনে পাঠ করতে পারি অথবা ডাউনলোড করে নিতে পারি।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x