b

হযরত রাবেয়া বসরি (র.) ছিলেন মুসলিম বিশ্বের একমাত্র জগৎবিখ্যাত মহিলা সুফি। তিনি ৯৯ হিজরি/৭১৭ খ্রিষ্টাব্দে ইরাকের বসরা নগরীতে জন্মগ্রহণ করেন। ছোটবেলায় তাকে দাসী হিসেবে বিক্রি করা হয়।

তার মনিব ছিল দুষ্ট প্রকৃতির। তাই তাকে দিয়ে অনেক কাজ করাত। রাবেয়া বসরি (র.) দিনের বেলায় কঠোর পরিশ্রম করতেন এবং রাতের বেলায় বিনিদ্র থেকে শুধু আল্লাহর ইবাদত করতেন। একদিন রাতে তার মনিবের ঘুম ভেঙে গেলে সে জানালা দিয়ে দেখল তার ক্রীতদাসী রাবেয়া বসরি একনিষ্ঠভাবে আল্লাহর ইবাদত করছে। আর উপর থেকে একটি বাতি তার ঘর আলোকিত করে আছে।

তা দেখে রাবেয়ার মনিব ভয় পেয়ে তাকে স্বাধীন করে দিল। তিনি সারাজীবন আল্লাহর ইবাদতে মশগুল ছিলেন। তিনি একমাত্র আল্লাহর ওপর নির্ভরশীল ছিলেন। তিনি জীর্ণ কুটিরে বাস করেও কোনো মানুষের সাহায্য গ্রহণ করেননি। তিনি অসুস্থ অবস্থায়ও আল্লাহর ওপর ভরসার কারণে নিজের আরোগ্য লাভের জন্য কোনো প্রার্থনা করতেন না। জীবনের অধিকাংশ সময়ই তিনি আল্লাহর ইবাদতে নিমগ্ন ছিলেন। তিনি সহজ-সরল জীবনযাপন করতেন। তিনি সর্বদা আল্লাহর শোকর গুজার করতেন। তিনি ৮০১ খ্রিষ্টাব্দে মৃত্যুবরণ করেন। হযরত রাবেয়া বসরি (র.)-এর জীবন আধ্যাত্মিকতা, কষ্টসহিষ্ণুতা ও সংযমের আদর্শে পরিপূর্ণ।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x