স্বাস্থ্য রক্ষায় ভিটামিন ও এন্টি-অক্সিডেন্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

ভিটামিনের অভাবে দেহের স্বাভাবিক কার্যকলাপে বিঘ্ন ঘটে এবং দেহ খুব সহজেই রোগ জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হয়। প্রকৃতিতে প্রায় ২০০ ধরনের ভিটামিনের সন্ধান পাওয়া গেছে যা দেহকে সুস্থ রাখতে ভিন্ন ভিন্ন কাজ করে থাকে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ভিটামিন হলো— A, B, C, D, E। ভিটামিন A দেহের স্বাভাবিক গঠন ও বর্ধন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করে, দৃষ্টিশক্তি স্বাভাবিক রাখে ও রাতকানা রোগ প্রতিরোধ করে।

ভিটামিন B দেহের বৃদ্ধি, স্নায়ু ও মস্তিষ্কের কাজ, প্রজনন ইত্যাদি সম্পন্ন করে। ভিটামিন C লোহিত রক্তকণিকা ও অণুচক্রিকা গঠনে সহায়তা করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

ভিটামিন D দাঁতের গঠন ও বৃদ্ধি, হাঁড়ের গঠন ও রিকেট রোগ প্রতিরোধ করে।

অন্যদিকে এন্টি-অক্সিডেন্ট বিভিন্ন ভিটামিনের সমন্বয়ে গঠিত যাকে বলা হয় সুপার ফুড। এটি শরীরের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এন্টি অক্সিডেন্ট শরীরের ক্ষতিকারক অতি সূক্ষ্ম পরমাণুর সঙ্গে লড়াই করে ডিএনএ কোষকে সুরক্ষিত রাখে। এছাড়াও এন্টি-অক্সিডেন্ট ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না। ক্যান্সার প্রতিষেধক হিসেবেও এটি পরিচিত। ব্লুবেরি, স্ট্রবেরি, গ্রিন টি, লবঙ্গ, মটরশুটি, কালো আঙুর প্রভৃতি এন্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার যা হৃদরোগ, ক্যান্সার, ডায়াবেটিসসহ আরো মারাত্মক রোগ প্রতিরোধী হিসেবে কাজ করে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x