হটস্পট হলো এক ধরনের ওয়্যারলেস নেটওয়ার্ক যা মোবাইল কম্পিউটার ও ডিভাইস যেমন; স্মার্ট ফোন, পিডিএ, ট্যাব, নোটবুক, নোটবুক বা ল্যাপটপ ইত্যাদিতে ইন্টারনেট সংযোগ সরবরাহ করে। বর্তমানে জনপ্রিয় তিনটি হটস্পট প্রযুক্তি হলো– ওয়াই-ম্যাক্স (WiFi-MAX), ওয়াই-ফাই (Wi-Fi) ও ব্লু-টুথ (Bluetooth)।

 

  • ওয়াই-ম্যাক্স (WiMAX) : ওয়াইম্যাক্স একটি উচ্চ গতির ব্রডব্যান্ড যোগাযোগ প্রযুক্তি যা বিস্তৃত অঞ্চলে দ্রুতগতির তারবিহীন ইন্টারনেট সেবা প্রদান করে। WiMAX এর পূর্ণরূপ হলো Worldwide Interoperability for Microwave Access। এটি প্রযুক্তিগতভাবে IEEE 802.16 নামে পরিচিত। লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক  (LAN) এর ক্ষেত্রে ওয়াইম্যাক্স এর সর্বোচ্চ বিস্তৃতি ৩০ মিটার (১০০ফুট)।
  • ওয়াই-ফাই (Wi-Fi = Wireless Fidelity) : ওয়াই-ফাই হচ্ছে এক ধরনের জনপ্রিয় তারবিহীন প্রযুক্তি যা রেডিও ওয়েভ ব্যবহার করে কোন ইলেকট্রনিক ডিভাইসকে উচ্চগতির ইন্টারনেট সংযোগ প্রদান কিংবা কম্পিউটার নেটওয়ার্কের  মাধ্যমে ডেটা আদান-প্রদান করতে পারে। এর স্ট্যান্ডার্ড হলো  IEEE 802.11। এটি WiMAX এর চেয়ে অপেক্ষাকৃত ধীরগতির।
  • ব্লু-টুথ (Bluetooth) : ব্লু-টুথ হলো তারবিহীন পার্সোনাল এরিয়া নেটওয়ার্ক (PAN) যা স্বল্প দূরত্বে ডেটা আদান-প্রদানে ব্যবহৃত হয়। এর দূরত্ব সাধারণত ১০ থেকে ১০০ মিটার হয়ে থাকে। ব্লুটুথ প্রযুক্তিতে কম ক্ষমতাসম্পন্ন বেতার তরঙ্গ (Radio Wave) ব্যবহার করা হয়। এর স্ট্যান্ডার্ড হলো IEEE 802.15। ডেনমার্ক এবং নরওয়ের রাজা  HaraId Bluetooth (রাজত্বকাল: ৯৫৮- ৯৮৬ খ্রি.) এর নামানুসারে  Bluetooth এর নামকরণ করা হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x